ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ: যা জানা গেলো

ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের চতুর্থ দিন চলছে। এতে বহু সৈন্য ও বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন বলে দাবি করা হচ্ছে ইউক্রেনসহ বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার তরফ থেকে। বাস্তুচ্যুত হয়েছে দেশটির হাজার হাজার মানুষ। 

আক্রমণের পর থেকে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে রাশিয়ার উপর। একের পর এক নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দও।
ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ: যা জানা গেলো
একটি ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ির নিকট দাঁড়িয়ে আছে ইউক্রেনের সৈন্যরা। ছবি: রয়টার্স

প্রায় ২০০ ইউক্রেনের নাগরিক নিহত

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটির অন্তত ১৯৮ জন নাগরিক নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজন শিশুও রয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছেন ১ হাজার ১১৫ জন। ইউক্রেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রধানের বরাত দিয়ে শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স।  তবে নিহতরা সবাই বেসামরিক নাগরিক ছিলো কিনা, বিষয়টি স্পষ্ট করা হয়নি।

এদিকে জাতিসঙ্ঘের মানবাধিকার অফিস জানিয়েছে বৃহস্পতিবারে শুরু হওয়া এ যুদ্ধে ২৪০ জন বেসামরিক নাগরিক হতাহত হয়েছেন। এদের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ৬৪ জন। 

সাড়ে ৩ লাখের বেশি মানুষের ইউক্রেন ত্যাগ

চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনের প্রায় ৩ লাখ ৬৮ হাজার মানুষ ভয়ে বিদেশে পালিয়েছে। ইউক্রেন সরকারের বরাত দিয়ে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর রবিবার এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানায়।

ইউএনএইচসিআর এর বরাত দিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার অফিসটি জানায় ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ইউক্রেনের ১ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষ অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। 

সাড়ে ৪ হাজার সৈন্য হারিয়েছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী

চলমান যুদ্ধে রাশিয়ার সামরিক বাহিনী প্রায় ৪ হাজার ৩০০ সৈন্য হারিয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেকসি রেজনিকভ রবিবার তাঁর ফেসবুক পেজ এ তথ্য জানান। তিনি দাবি করেন রাশিয়ার সামরিক বাহিনী তাদের প্রায় ১৪৬ টি ট্যাঙ্ক, ২৭ টি বিমান ও ২৬ টি উড়োজাহাজও হারিয়েছেন। 

এর আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির একজন উপদেষ্টা শনিবার দাবি করেন রাশিয়ার প্রায় ৩ হাজার ৫০০ সৈন্য এ সংঘাতে নিহত অথবা আহত হয়েছেন।   

ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা 

রাশিয়াকে প্রতিহত করতে ইউক্রেনকে অর্থ ও অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। দেশটিকে ৩৫ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সামরিক সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নও। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।  

রাশিয়া, প্রেসিডেন্ট পুতিন ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপর নিষেধাজ্ঞা 

ইউক্রেনে আক্রমণের ঘটনায় রাশিয়ার উপর নিশেধাজ্ঞা জারি করেছে বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা। বৃহস্পতিবার দেশটির অর্থ, জ্বালানি ও পরিবহন খাতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তারপর যুক্তরাষ্ট্রও বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এবং সর্বশেষ শুক্রবার পুতিন ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। পুতিনের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ইউরোপীয় ইউনিয়নও। 

রাশিয়া কখন ইউক্রেনে আক্রমণ চালায় 

বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে পূর্ণ মাত্রায় আক্রমণ করে রাশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানান। ইন্টারফ্যাক্স ইউক্রেন এর খবরে বলা হয় রাশিয়ার সৈন্যরা ওডেসা ও মারিউপোল শহরের দক্ষিণ বন্দর দিয়ে ইউক্রেনে প্রবেশ করে এবং দেশটির সামরিক স্থাপনাসমূহে রকেট হামলা চালিয়ে আক্রমণ শুরু করে।

সূত্র: রয়টার্স

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url